ডায়াবেটিস রোগীরা কি খেতে পারবেন লিচু?

0

স্বাদের দিক থেকে লিচু অতুলনীয়। এর খাদ্যগুণও যথেষ্ট। সব ফলেরই কিছু না কিছু উপকারিতা থাকে, লিচুতেও রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। এই ফল সম্বন্ধে অনেক ভুলধারণাও রয়েছে আমাদের। বিশেষ করে ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে। রক্তে শর্করা বেড়ে যাওয়ার ভয়ে, তারা লিচু খেতে পারেন না।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য কি লিচু একেবারেই নিষিদ্ধ?

বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ফলটির অন্তত পক্ষে ৮১ শতাংশই পানি। তাই শরীরে পানির ঘাটতি পূরণ করার জন্য এই ফল আদর্শ। এর প্রাকৃতিক কার্বোহাইড্রেটের কারণে এর স্বাদও বেশ মিষ্টি। গরম মোকাবিলায় লিচুর তুলনা নেই। মৌসুমের সব ফলই খুব উপকারী। ডায়াবেটিস রোগীদের মিষ্টি খাওয়ার ক্ষেত্রে একটি মাত্র বিকল্প রয়েছে এবং সেটি হলো ফল। ফল খাওয়া তাদের শুধুমাত্র পুষ্টি সরবরাহ করে না, তাদের দেহে বজায় রাখে চিনির মাত্রাও।

লিচু অনেক পুষ্টিগুণের ভাণ্ডার। এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইটোকেমিক্যালস রয়েছে যেমন স্যাপোনিন, স্টিগমারস্টেরল, এপিটিকন, লিউকোসায়ানডিন, মালভিডিন, গ্লাইকোসাইডস এবং প্রোকায়ানডিনস এ টু এবং বি টু। এছাড়াও, লিচু পাতা, বীজ এবং ফুল সব ব্যবহার করা যেতে পারে। এই ফলের ব্যবহার কেবল গ্লুকোজ স্তর নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না তবে গ্রীষ্মের মৌসুমে এটি আপনাকে শীতলতাও সরবরাহ করে। আসুন জেনে নেওয়া যাক ডায়াবেটিসে লিচুর বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে।

লিচুর  অ্যান্টি ডায়াবেটিস বৈশিষ্ট্য

সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় জানা গয়েছে, এটিতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি, অ্যান্টি-ডায়াবেটিক এবং ইমিউনোমোডুলেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে। লিচুর ব্যবহারের মাধ্যমে ফ্রি র‍্যাডিক্যালের প্রভাব হ্রাস করা যায়। লিচু খেলে প্রতিরোধ ব্যবস্থাও মেরামত হয়।

পরিমাণে কতটা লিচু খাবেন

ডায়াবিটিস রোগীদের লিচু খাওয়া নিরাপদ, তবে আপনি এটি পরিমিতরূপে খেতে ভুলবেন না। ডায়াবেটিস রোগীদের তাদের ক্যালোরির যত্ন নিতে হবে। আপনার পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিন এবং সঠিক পরিমাণে আপনার কত ফল খাওয়া উচিত তা জেনে নিন।

ইমিউনিটি বুস্টার লিচু

ডায়াবিটিস রোগীদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা প্রায়শই খুব দুর্বল থাকে। যার কারণে অসুস্থ হতে শুরু করে। তবে লিচু খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আরও উন্নত হতে পারে। সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় জানা গিয়েছে, এতে অনেকগুলি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা বায়োঅ্যাকটিভ যৌগিক ম্যাক্রোফেজগুলির উত্পাদন বাড়াতে কাজ করে। এটির মাধ্যমেই অনাক্রম্যতা বাড়ানো শুরু হয়।

লিচু স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে

ডায়াবেটিস রোগীরা জন্য ফাইবারের প্রয়োজনীয়তা সকলেই জানেন।লিচুর ভিতরে ফাইবারের পরিমাণ খুব বেশি, যা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে। এ ছাড়া লিচুর ভিতরে কোলেস্টেরলও নেই।

এছাড়াও লিচুতে রয়েছে প্রচুর বৈশিষ্ট্য যা চাপ কমাতে সাহায্য করে। শুধু এটিই নয় এর অভ্যন্তরে ভিটামিন বি কমপ্লেক্সের মতো উপাদান রয়েছে যা উন্নত করে ইনসুলিনের উৎপাদন ।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

%d bloggers like this: